‘ইয়ং গ্লোবাল লিডার ২০১৬’ মনোনীত হলেন জুনাইদ পলক

0
322

ওয়ার্ল্ড ইকোনমকি ফোরাম বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে ‘ইয়াং গ্লোবাল লিডার ২০১৬’ হিসেবে মনোনীত করেছে। বুধবার বিকেলে ওয়ার্ল্ড ইকোনমকি ফোরাম পলকসহ ৪০ বছরের কম বয়সী বিশ্বের অন্যান্য যুব বিশ্ব নেতাদের নাম তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে। বুধবার বিকেলে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, সাউথ এশিয়া রিজিয়নে জুনাইদ আহমেদ পলককে এই মনোনয়ন দেওয়া হয়। পলককে ‘ইয়াং গ্লোবাল লিডার ২০১৬’ নির্বাচনের ক্ষেত্রে ফোরাম উল্লেখ করে যে, তার নেতৃত্বগুনে পেশাদারী কর্মসম্পাদন, সমাজের প্রতি অঙ্গীকার এবং আগামীর পৃথিবী রূপায়নে সম্ভাব্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এই সম্মানায় ভূষিত করা হলো। সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক এই থিংক ট্যাংক প্রতিষ্ঠানটি প্রতি বছরই সারা পৃথিবী থেকে নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে উজ্জ্বল ছড়ানো ৪০ বছরের কম বয়সী বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে এই সম্মাননা প্রদান করে থাকে। এ মনোনয়নের ফলে জুনাইদ আহমেদ পলক আগামী পাঁচ বছর ফোরামের সকল কনফারেন্স ও কর্মশালায় অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে এবং উক্ত ফোরাম মনোনীত ব্যক্তির অনন্য উদ্যোগে সহযোগিতা করবে বলে উল্লেখ করে। পলক মাত্র ২৮ বছর বয়সে ২০০৮ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন এবং ২০১৪ সালে তিনি পুনরায় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ২০১৪ সালের ১২ই ডিসেম্বর প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণের মাধ্যমে বর্তমান মন্ত্রিসভার সর্বকনিষ্ঠ সদস্য হিসেবে কর্মকাণ্ড শুরু করেন। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে জন-সাধারণের জীবন-মান উন্নয়নে তিনি অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করে চলেছেন। বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি, তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর সেবা-শিল্প, উদ্ভাবন, তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তা এবং ই-গভর্নেন্স ও ই-সেবা প্রদান কার্যক্রম সম্প্রসারণে অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন। ইন্টারনেটের বিস্তার, ডিজিটাল কন্টেন্ট সমৃদ্ধি, অনলাইন শিক্ষা, ই-কৃষি, টেলিমেডিসিন, হাই-টেক পার্ক ইত্যাদি কার্যক্রমে তার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে। উল্লেখ্য যে, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ২০০৭ সালে মর্যাদাপূর্ণ এই মনোনয়ন পান। ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ, গুগলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ, ই-কমার্স সাইট আলীবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা এবং খ্যাতিমান অভিনেতা লিউনার্দো ডি ক্যাপ্রিউ’র মতো প্রখ্যাত ব্যক্তিরা বিভিন্ন সময় ‘গ্লোবাল ইয়ং লিডার’ মনোনয়ন পেয়েছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here