ওবামার আহ্বান মধুমাখা ভাষণ: ফিদেল কাস্ত্রো

0
306

কিউবা সফরে অতীতকে পেছনে ছেড়ে বন্ধু ও প্রতিবেশী হিসেবে সামনে এগিয়ে যেতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আহ্বানকে ‌মধুমাখা ভাষণ আখ্যায়িত করে তার সমালোচনা করেছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ফিদেল কাস্ত্রো। ওবামা দেশটি সফর করে যাওয়ার এক সপ্তাহ পর রাষ্ট্রীয় সংবাদপত্র গানমায় প্রকাশিত এক চিঠিতে সাম্রাজ্য (যুক্তরাষ্ট্র) থেকে তাদের কিছু নেয়ার প্রয়োজন নেই বলেও জানিয়ে দেন এই কমিউনিস্ট বিপ্লবী। গত ২০ মার্চ তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে হাভানা পৌঁছান বারাক ওবামা। গত ৮৮ বছরের মধ্যে এটাই ছিল যুক্তরাষ্ট্রের কোনো প্রেসিডেন্টের প্রথম কিউবা সফর।   ১৯৫৯ সালে ফিদেল কাস্ত্রোর নেতৃত্বে বিপ্লবে কিউবার যুক্তরাষ্ট্রপন্থি সরকারের পতন হলে দুদেশের মধ্যে শত্রুতার সূত্রপাত হয়। কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের পর প্রতিবেশী রাষ্ট্রটির উপর অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করে ওয়াশিংটন, যা ৫৪ বছর বলবত্ ছিল। ২০১৪ সাল থেকে ওবামা ও কিউবার বর্তমান প্রেসিডেন্ট ফিদেলের ভাই রাউল কাস্ত্রো বিরোধ অবসানের বিষয়ে একমত হলে পরিস্থিতি পাল্টাতে শুরু করে দুদেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা হয়। সফরে প্রায় ৪৭ বছর কিউবা শাসন করা ফিদেল কাস্ত্রোর সঙ্গে কোনো বৈঠকসূচি ছিল না ওবামার। এমনকি সফরের সময় বিভিন্ন বক্তৃতায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ফিদেলের নামও উচ্চারণ করেননি তিনি।   সফররত বারাক ওবামার সঙ্গে রাউল কাস্ত্রো সফররত বারাক ওবামার সঙ্গে রাউল কাস্ত্রো সফরের শেষদিনে দেওয়া ভাষণে ওবামা বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ও কিউবার অতীতকে পেছনে ছেড়ে আসার এটিই সময় এবং এখন বন্ধু হিসেবে, প্রতিবেশী হিসেবে এবং পরিবার হিসেবে একত্রে উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিকে যাত্রা শুরু করার সময়। তার এসব কথাকে ব্যঙ্গ করে চিঠিতে ফিদেল কাস্ত্রো বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের মুখ থেকে এসব শব্দ শুনে আমরা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিতে পড়ে গিয়েছিলাম বলে মনে হয়।   এক দশক আগে ভাইয়ের হাতে ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া ফিদেল কিউবার কমিউনিস্ট শাসন উত্খাতে সিআইএর মদদে বে অব পিগস অভিযান এবং দীর্ঘ অবরোধের প্রসঙ্গ টানেন। ভাষণের চূড়ান্ত পর্বে ওবামা কমিউনিস্ট শাসিত কিউবার জনগণকে গণতন্ত্র বেছে নেওয়ার পরামর্শ দিয়ে বলেন, এটি নিখুঁত নয়, তবে এখনও পর্যন্ত এটিই সেরা পদ্ধতি। ৮৯ বছর বয়সী এই বিপ্লবী কিউবার নীতি বিশ্লেষণের আগে আরও চিন্তা-ভাবনা করার পরামর্শ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here