ফুলবাড়ীয়ায় পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় শতাধিক গভীর নলকুপ বন্ধ ঃ কৃষকদের মধ্যে হতাশা

0
397

আবুল কালাম ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলায় পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় শতাধিক গভীর নলকূপ বন্ধ হয়ে গেছে। বিএডিসির ৬শ গভীর নলকূপের মধ্যে শতাধিক গভীর নলকূপ বন্ধ থাকায় বোরো মৌসুমে হাজার হাজার একর জমি অনাবাদী থেকে যাচ্ছে। বন্ধ গভীর নলকূপগুলো চালু করার জন্য কয়েক দফায় চিঠি চালাচালি হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। কৃষকদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে।
উপজেলার ১৩ টি ইউনিয়নে বিএডিসি ৬শ টি গভীর নলকূপ স্থাপন করে। তার মধ্যে ৮০ দশকে ৭৫/৮০ ফুট হাউজিং দিয়ে স্থাপন করা ৩শ গভীর নলকূপের মধ্যে এরই মধ্যে শতাধিক গভীর নলকূপ বন্ধ হয়ে গেছে। চৈত্র মাসে পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় এসব গভীর নলকূপে পানি উঠছে না। চৈত্র মাসে পানি না উঠায় কৃষকের জনরোষ থেকে বাঁচতে গভীর নলকূপ ম্যানেজাররা শতাধিক গভীর নলকূপ বন্ধ করে দিয়েছে। শতাধিক গভীর নলকূপ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় হাজার হাজার একর বোরো আবাদের জমি অনাবাদী থেকে যাচ্ছে। কৃষক বঞ্চিত হচ্ছে বোরো ধানসহ শাকসবজি উতপাদন থেকে।
উপজেলা বিএডিসি অফিসের অফিস সহকারী গুলজার হোসেন জানান, এ উপজেলায় স্বাভাবিক সময়ে পানির স্তর থাকে ৯/১০ ফিটে। বোরো মৌসুমে চৈত্র মাসে পানির স্তর সাড়ে ৬৫ ফিটে চলে যায়। ফলে ৭৫/৮০ ফিটের মধ্যে স্থাপন করা শতাধিক গভীর নলকূপে পানি উঠা বন্ধ হয়ে যায়। গভীর নলকূপ গুলো সংস্কার করা হলে চৈত্র মাসে পানি উঠার সম্ভাবনা রয়েছে।
ফুলবাড়ীয়া গভীর নলকূপ ম্যানেজার সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি এ বি সিদ্দিক জানান, ২/৩ বছর ধরে শতাধিক গভীর নলকূপ বন্ধ থাকার বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিত ভাবে জানানো হয়েছে। কিন্তু আজ পর্যন্ত কোন কার্যকর প্রদক্ষেপ গ্রহন করা হয়নি। এ নিয়ে গভীর নলকূপ ম্যানেজারদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে। বন্ধ হয়ে যাওয়া গভীর নলকূপ গুলো সংস্কার করে পূনরায় চালু করার জন্য সংশ্লিষ্টদের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here