গৌরনদীর স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে আশুলিয়ায় আটকে রেখে ধর্ষণ

0
365

বরিশাল প্রতিনিধি ॥ অপহরণ করে ২৮ দিন আটকে রেখে বরিশালের গৌরনদী গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে (১৪) ধর্ষণ করা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে শনিবার রাতে ঢাকার আশুলিয়া থানা এলাকা থেকে অপহৃতা ধর্ষিত স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও ধর্ষক সুলতান আহম্মেদকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃত সুলতান আহম্মেদ পটুয়াখালী জেলার মীর্জাগঞ্জ থানার আমলাগাছিয়া গ্রামের রশিদ গাজীর ছেলে।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. আলাউদ্দিন মিলন জানান, উপজেলার টিকাসার গ্রামের নানা ওহাব আলী হাওলাদারের বাড়িতে থেকে তার নাতনী (১৪) গৌরনদী গালর্স স্কুল এন্ড কলেজে নবম শ্রেনীতে লেখাপড়া করে আসছিল। ওই স্কুলছাত্রী গত ৫ মার্চ সকালে নানা বাড়ি থেকে স্কুলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথিমধ্যে ওই স্কুলছাত্রী চরগাধাতলী এলাকায় পৌছলে বখাটে সুলতানের নেতৃত্বে তার ৪/৫ জন সহযোগীরা ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর অপহরণকারী সুলতান স্কুলছাত্রীকে ঢাকার আশুলিয়া থানাধীণ একটি বাসায় ২৮দিন আটকে রেখে দিনের পর দিন ধর্ষণ করে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতার নানা ওহাব আলী হাওলাদার বাদি হয়ে গৌরনদী মডেল থানায় একটি অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। গোপণ সংবাদের ভিত্তিতে গৌরনদী মডেল থানার এস.আই মোঃ নজরুল ইসলাম আশুলিয়া থানা পুলিশের সহযোগীতায় শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় আশুলিয়া থানার ইয়ারপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত ধর্ষিত স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারী ধর্ষক সুলতান আহম্মেদকে গ্রেপ্তার করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here