রিজার্ভ চুরির আরও ৩৫ কোটি টাকা ফেরত কিমের

0
241

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে চুরি হওয়া অর্থের মধ্যে আরও প্রায় ৩৫ কোটি টাকা (২০০ মিলিয়ন পেসো) ফেরত দিয়েছে ফিলিপাইনের ব্যবসায়ী ও জাংক অপারেটর কিম অং। খবর ফিলিপাইনের অনলাইন গণমাধ্যম ইনক্যয়ার ডটনেট। অর্থ ফেরত দেওয়ার এ বিষয়টি ফিলিপাইনের অর্থপাচারবিরোধী কাউন্সিলের (এএমএলসি) প্রধান নির্বাহী জুলিয়া বেকেই আবাদ নিশ্চিত করেছেন। অর্থ চুরির ঘটনা তদন্তে গঠিত ফিলিপাইনের সিনেট ব্লু রিবন কমিটির শুনানিতে মঙ্গলবার তিনি এ তথ্য জানান। সোমবার ইস্টার্ন হাওয়াই কম্পানি তার আইনজীবীর মাধ্যমে এ অর্থ ফেরত দিয়েছেন বলে জানান এএমএলসির এ কর্মকর্তা। সিনেট কমিটির প্রধান তোয়েফিস্তু গুয়িনগোনা প্রশ্ন করেন, আমার মনে হয় কিম অং গতকাল ২০০ মিলিয়ন পেসো ফেরত দিয়েছেন। আমি কি ঠিক বলেছি? এর উত্তরে এএমএলসির নির্বাহী অর্থ ফেরত পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এরপর সিনেট প্রধান ব্যবসায়ী কিম অং-কে অর্থ ফেরত দেওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, আমি ৪৫০ মিলিয়ন পেসো (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৭৯ কোটি টাকা) এক মাসের মধ্যে ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। তারই অংশ হিসাবে আমি এ অর্থ ফেরত দিয়েছি। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতে অন্যতম হোতা বলে বিবেচনা করা হচ্ছে কিম অং-কে। তবে এ ব্যবসায়ী সিনেট ব্লু রিবন কমিটির শুনানিতে অর্থপাচারের সঙ্গে দুই চীনা নাগরিক জড়িত রয়েছে বলে জানিয়েছেন। এর আগে দুই দফায় এ ব্যবসায়ী এএমএলসির কাছে ৫২ লাখ ডলার বা ৪৩ কোটি টাকা ফেরত দিয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here