ভুটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে রংপুর চেম্বারে নেতৃবৃন্দের আলোচনা

0
264

ভুটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিওনপো দামচো দর্জি’র সাথে শনিবার সন্ধ্যায় রংপুর চেম্বার ভবনের আরসিসিআই অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ-ভুটানের মধ্যে ব্যবসায়িক বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (আরসিসিআই)’র আয়োজনে উক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রংপুর চেম্বারের সভাপতি মো. আবুল কাশেম।
দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় রংপুর চেম্বারের সভাপতি মোঃ আবুল কাশেম তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, ‘ভুটান বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের বন্ধু। বন্ধুত্বের মাধ্যমে দু’দেশের অর্থনৈতিক সহযোগিতা আগামীতে আরো জোরদার করতে হবে। বাংলাদেশÑভুটান-ইন্ডিয়া-নেপাল (বিবিআইএন) যানবাহন চলাচল চুক্তি বাস্তবায়ন হলে কানেক্টিভিটি সমস্যা কেটে যাবে। অবকাঠামোগত সমস্যা কেটে গেলে ভূটানের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য বহুগুণ বাড়বে। দু’দেশের দ্বি-পাক্ষিক সুসম্পর্কের কারণে দিন দিন উভয় দেশের মধ্যে বাণিজ্যের পরিমাণ বাড়ছে।
তাই তিনি দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যের গতি ত্বরান্বিতকরণে মার্কেট এ্যাকসেস, ট্রানজিট, অভ্যন্তরীণ নৌ-রুট ব্যবহার, স্থল বন্দরের অবকাঠামোগত উন্নয়ন, আমদানি-রফতানির ক্ষেত্রে এলসি প্রক্রিয়া সহজীকরণ, শুল্ক ও অশুল্ক বাধাসমূহ দূরীকরণ, ভিসা প্রক্রিয়া সহজীকরণের ব্যাপারে ভূটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।
এছাড়া তিনি বাংলাদেশ থেকে বিশেষ করে ফার্মাসিউটিক্যালস, মৌসুমি শাক-সবজি, তৈরি পোশাক, পাট ও পাটজাত দ্রব্য, চামড়াজাত পণ্য ইত্যাদি আমদানির পদক্ষেপ নেয়ার অনুরোধ জানান।
দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় ভূটানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিওনপো দামচো দর্জি ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কিছু কিছু সমস্যা থাকলেও তা দেশের স্বার্থ বিবেচনা করে দ্রুত নিরসনের ব্যাপারে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে উপস্থিত ব্যবসায়ীদেরকে আশ্বস্ত করেন।
দ্বি-পাক্ষিক আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন রংপুর চেম্বারের সহ-সভাপতি মো. মোজাম্মেল হক ডাম্বেল, এফবিসিসিআই’র পরিচালক ও রংপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি মো. মোছাদ্দেক হোসেন বাবলু, রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ড. এটিএম মাহবুবুল করিম, পররাস্ট্র মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (দক্ষিণ এশিয়া) মনোয়ার হোসেন, রংপুর চেম্বারের বর্তমান এবং সাবেক কর্মকর্তা ও পরিচালকবৃন্দ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ীবৃন্দ, রংপুর উইমেন চেম্বারের নেতৃবৃন্দ, আমদানি-রপ্তানিকারকবৃন্দ, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here