সন্ত্রাস ও চরমপন্থা মোকাবেলায় বাংলাদেশ ও জার্মানী একসঙ্গে কাজ করবে

0
460

বাংলাদেশ ও জার্মানী দু’দেশের মধ্যকার পারস্পরিক সহযোগিতা আরো জোরদারের মধ্য দিয়ে সন্ত্রাস ও সহিংস চরমপন্থা মোকাবেলায় আরো ঘনিষ্টভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছে।
বুধবার এখানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল সোমবার বার্লিনে অনুষ্ঠিত দু’দেশের মধ্যে পররাষ্ট্র দপ্তর পর্যায়ে কনসালটেশনে (এফওসি) এই প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করা হয়।
জার্মানীর কেন্দ্রীয় পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ঐতিহাসিক ভবনে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক এবং জার্মানীর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মারকুস ইডেরার স্ব স্ব পক্ষে নেতৃত্ব দেন।
বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে বিরাজমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের সম্ভাব্য সকল দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। বৈঠকে শহীদুল হক ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীন হবার পর থেকে বাংলাদেশে টেকসই জার্মান উন্নয়ন সহায়তার প্রশংসা করেন। তারা বৈঠকে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়েও আলোচনা করেন।
পররাষ্ট্র সচিব হক দু’দেশের মধ্যকার সম্পর্ক আরো জোরদার ও সম্প্রসারনে কিছু নতুন প্রস্তাব বিশেষ করে টেকসই উন্নয়নের জন্য এজেন্ডা ২০৩০ এর বাস্তবায়নের জন্য কিছু কৌশল উত্থাপন করেন। এ ক্ষেত্রে তিনি বাংলাদেশে দক্ষতা ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তা এবং সবুজ শিল্পাপায়ন গড়ে তোলা, প্রযুক্তি উন্নয়ন ও স্থানান্তরের একটি প্রস্তাব হস্তান্তর করেন এবং এ ক্ষেত্রে জার্মানীর সহায়তা কামনা করেন।
বৈঠকে উভয় পক্ষ বাংলাদেশে জার্মান বিনিয়োগের জন্য এক সঙ্গে কাজ করতে সম্মত হয়। দুই পররাষ্ট্র সচিব ইউরোপে উদ্বাস্তু ও অভিবাসন সংকট নিরসনে অভিন্ন মত ব্যক্ত করেন।
পরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক জার্মানীর অর্থনৈতিক সহযোগিতা বিষয়ক স্টেট সেক্রেটারি হ্যান্স জোয়াচিম ফুচটেলের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে হক বাংলাদেশে তৈরি পোশাক শিল্পে সহায়তা অব্যাহত রাখার জন্য তাকে ধন্যবাদ জানান।
পররাষ্ট্র সচিব ক্ষমতাসীন জোটের সদস্য সোস্যাল ডেমোক্রাটিক ইউনিয়নের (এসডিইউ) রাজনৈতিক ফাউন্ডেশন ফ্রাইড্রিস- ইবার্ট-স্টাফটং এর সদর দপ্তরে ”বাংলাদেশ ২০৩০ এন্ড বিহায়েন্ড’’ শীষর্ক জামার্ন শিক্ষাবিদ, ব্যবসায়ি,এবং শিল্প বিশেষজ্ঞদের অংশগ্রহনে একটি বিশেষজ্ঞ পযার্য়ে গোলটেবিল বেঠকের প্রস্তাব করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দু’দেশের মধ্যকার পরবর্তী পররাষ্ট্র দপ্তর পর্যায়ের বৈঠক আগামী বছরে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here